করোনার ভয়াল থাবা; বার্সেলোনায় নতুন বিধিনিষেধ ঘোষণা

বার্সেলোনা, স্পেন। ছবি:: মুবিন খান

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের তান্ডবে লণ্ডভণ্ড বিশ্ব। মৃত্যুর সংখ্যায় প্রতিনিয়ত যোগ হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। স্পেনেও তার কম নয়। সম্প্রতি মহামারী এই ভাইরাসের ভয়াবহ আক্রমণ থেকে স্বাভাবিক জীবন যাত্রায় ফিরেছে ইউরোপের দেশ স্পেন। টানা তিনমাসের বন্দিজীবন কাটিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন বুনেছিল করোনাভাইরাসের তান্ডবে বিপর্যস্ত হয়ে যাওয়া ইউরোপের এই উন্নত রাষ্ট্র। কঠিন শ্বাসরুদ্ধকর এই পরিস্থিতি থেকে উঠে আসতে না আসতেই আবার পড়েছে করোনার ভয়াল থাবা। নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছে হাজারও মানুষ।

স্পেনের অনেক শহরে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় রাজ্য কেন্দ্রিক আবারো এসেছে নতুন ঘোষণা।

স্পেনে অবস্থান করা বাংলাদেশী সাংবাদিক মিরন নাজমুল করোনার নিয়মিত আপডেট বাংলাদেশী কমিউনিটির সুবিধার্থে তার নিজস্ব ফেইসবুক আইডিতে প্রচার করেন।
সেই তথ্য অনুসারে জানাযায়, বার্সেলোনার উপর বিধি-নিষেধ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে কাতালোনিয়ার প্রশাসন। এই বিধিনিষেধের প্রাথমিক সময়কাল হবে ১৫ দিন। আগামীকাল শনিবার (১৮ জুলাই) থেকে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া সবাইকে ঘরে অবস্থান করতে বলেছে স্থানীয় প্রশাসন। তাছাড়া দশজনের বেশি মানুষ এক জায়গায় জড়ো হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

কাতালোনিয়া প্রশাসন জানায়, শনিবার (১৭জুলাই) থেকে এই বিধি-নিষেধ কার্যকর করা হবে। কভিড১৯-এর নতুন সংক্রমন প্রতিরোধ করার জন্য কাতালান সরকার আজ এই নতুন পদক্ষেপ ঘোষণা করেছে।

রাজধানী বার্সেলোনা ও তার আশপাশ এবং লে হসপিতালেত (L’Hospitalet de Llobregat) এর তিনটি স্পট Collblanc, la Torrassa y la Florida.
এসব সিটি গুলোতে আগে থেকেই এই নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছিলো। এইসব অঞ্চল আবার নতুন করে নতুন পদক্ষেপের আওতায় আসবে।
এছাড়া Lleida প্রদেশের সংক্রমিত অঞ্চলও এই নতুন নিষেধাজ্ঞার আওয়াত থাকবে।

এই ঘোষণায়, কাউকে তার নিজস্ব দ্বিতীয় আবাসস্থলে না যাওয়া এবং সমুদ্র সৈকতসহ কোন পর্যটন কেন্দ্রে ঘুরাঘুরি না করার আহবান জানানো হয়েছে। একেবারে জরুরী কাজ ছাড়া আবাসস্থল থেকে বের না হওয়ার জন্য বলেছে কাতালোনিয়া প্রশাসন। কাজের জন্য বের হওয়া, স্বাস্থ্যক্লিনিকে যাওয়া, বৃদ্ধ, শিশু ও শারীরিক অক্ষম মানুষদের সেবা দেওয়া, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত, আইন সংস্লিষ্ট বিষয়ের জন্য যাতায়াত, নোটারিয়াল কার্যক্রম, পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয় ছাড়া বাকি সব চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

খোলা বা বদ্ধ জায়গায় একস্থানে ১০ জনের বেশি মানুষ সমাগমও নিষিদ্ধ করেছে সরকার। সিনেমা থিয়েটারসহ অন্যান্য বিনোদনাগার বন্ধ থাকবে। নিষিদ্ধ থাকবে বৃদ্ধাশ্রমে ভিজিট করা।

বার ও রেস্টুরেন্টগুলোতে শুধু টেবিলে ৫০% অংশ নিয়ে পরিবেশন করা যাবে। সামিয়ানা (Terrazas) গুলোকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে ব্যবহার করতে হবে।

সম্পূর্ণ লকডাউন না করে, বরং সামাজিক যোগাযোগ নিয়ন্ত্রনের মাধ্যমে নতুন সংক্রমনের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষার জন্যই কাতালোনিয়ার গভর্ণর এই পদক্ষেপ নিচ্ছে বলে জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, কাতালোনিয়ায় নতুন সংক্রমনের হার কিছুটা জটিল পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে নতুন ১ হাজার ১ শত ১১জন আক্রান্ত ও ২ জন মৃত্যুবরণ করেছে। বার্সেলোনার মূল শহরে নতুন আক্রান্ত হয়েছে ৩৪৬জন। আর বার্সেলোনার পুরো মেট্রোপলিটান এরিয়ায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৭৭২জন।

Share:

Share on facebook
Share on twitter

Leave a comment

Your email address will not be published.

Others Post

Sponsor

Related Article

বার্সেলোনায় প্রথম বাংলাদেশী নাগরিকের করোনা ভ্যাকসিন গ্রহন

বার্সেলোনায় প্রথম বাংলাদেশী নাগরিক হিসেবে করোনা ভাইরাসের ফাইজার ভ্যাকসিন গ্রহন করেছেন ১৯ বছর বয়সী এক কিশোরী।। তার নাম ফারিহা আক্তার মীম। ২০০৮ সাল থেকে পরিবারের

Read More »

স্পেনে করোনাকালীন মানবসেবায় সম্মাননা পেলেন ১৭ জন বাংলাদেশী

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে মহামারী করোনাকালীন সময়ে সঙ্কটাপন্ন অসহায় প্রবাসী এবং বাংলাদেশিদের সহযোগিতায় স্বেচ্ছায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, দুভাষীসহ স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করে বিশেষ সম্মাননা পেলেন ১৭

Read More »